আইপিএল ফিক্সিং থেকে পর্নগ্রাফি: শিল্পার স্বামী কি কখনই ভালো হবেন না?

ফিক্সিংয়ের জন্য নিষিদ্ধ হয় ভিন্ন ভিন্ন দেশের ক্রিকেটার। কিন্তু জুয়ার পসরা সাজিয়ে ক্রিকেটারদের ফিক্সিংয়ে জড়ানোর মূল কাজটাই করেন ভারতীয়রা। সেই ভারতেই এবার আরও একবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠলো ফিক্সিং বিতর্ক।

নতুন খবর হচ্ছে, তার মাধ্যমেই ভারতীয় ক্রিকেটে ফিক্সিংয়ের কলঙ্কা ফিরে এসেছিল। ২০০৮ সালে রাজস্থান রয়্যালসের আইপিএল জয়ও ভুলিয়ে দিয়েছিল ম্যাচ ফিক্সিং বিতর্ক।

বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠি এবং তার স্বামী রাজ কুন্দ্রা ছিলেন রাজস্থান রয়্যালসের অন্যতম কর্ণধার। ফিক্সিংয়ের দায়ে রাজস্থান রয়্যালসকে ২০১৬ এবং ২০১৭ সালে দুই বছর নিষিদ্ধ করা হয়। আর রাজকেও সব রকমের ক্রিকেট থেকে আজীবন নিষিদ্ধ করা হয়। তারপরেও ভালো হয়ে যাননি রাজ।

এবার শিল্পার স্বামী রাজ কুন্দ্রাকে পর্নগ্রাফির দায়ে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে মুম্বাই পুলিশ রাজকে গ্রেপ্তার করে। ৪৫ বছর বয়সী এই শিল্পপতির বিরুদ্ধে আঙুল তুলতে শুরু করেছেন একাধিক নায়িকা। মুম্বাইয়ের পুলিশ কমিশনার বলেন, ‘রাজ হলেন পর্ন ভিডিও নির্মাণ চক্রের মূল হোতা। তার বিরুদ্ধে আমাদের কাছে প্রমাণ আছে।’

২০১৮ সালে সুপ্রিম কোর্টের কাছে তাকে আইপিএলের ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগ থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য আবেদন করেছিলেন রাজ। তারপর তাকে এই অভিযোগ থেকে রেহাই দেয় দিল্লি পুলিশ। রাজের এই ম্যাচ ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে শ্রীশান্ত,

অজিত চান্দিলা এবং অঙ্কিত চবনের মতো ক্রিকেটারদের নামও জড়িয়েছে। দীর্ঘ নিষেধাজ্ঞা শেষে কিছুদিন আগে মুক্ত হয়েছেন শ্রীশান্ত। রাজস্থানের সঙ্গে এই বিতর্কে ছিল চেন্নাই সুপার কিংসের নামও। মহেন্দ্র সিং ধোনির দলও দুই বছর নিষিদ্ধ ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *