দুঃসংবাদঃ নায়ক-নায়িকাসহ সেটের ১৪জন ক’রো’নায় আ’ক্রান্ত!

বিনোদন

লকডাউনের কারণে দীর্ঘদিন শুটিং বন্ধ থাকার পর ‘নিউ নর্মাল’ জীবনে ফিরেছে টলিপাড়া। লাইট, ক্যামেরা-অ্যাকশনে আবারো মুখরিত হয়ে উঠেছে শুটিং ইউনিটগুলো।

ঠিক এই মুহূর্তে এলো দুঃসংবাদ। কারণ ধারাবাহিক নাটকের নায়ক-নায়িকাসহ শুটিং সেটের ১৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম এ খবর প্রকাশ করেছে।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে—জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘কৃষ্ণকলি’ নাটকের অশোক অর্থাৎ ভিভান ঘোষ, ‘কনে বউ’ ধারাবাহিক নাটকের মাহি অর্থাৎ নেহা আমনদীপ, ‘সিংহলগ্না’ ধারাবাহিকের মেক আপ আর্টিস্ট দীপঙ্কর রায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া বিভিন্ন ধারাবাহিকে কর্মরত আরো ১১ জন কলা-কুশলীর করোনা শনাক্ত হয়েছে।

জানা যায়, গত ২১ জুলাই জ্বর আসে ভিভান ঘোষের। সন্দেহ থেকেই কোভিড-১৯ পরীক্ষা করান তিনি। তারপরই জানা যায় শরীরে করোনাভাইরাস বহন করছেন তিনি। আপাতত শুটিং বন্ধ রেখে বাসা থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন এই অভিনেতা।

গত (২২ জুলাই) করোনা আক্রান্ত হন ধারাবাহিক ‘কনে বউ’-এর মাহি অর্থাৎ নেহা। কোনো উপসর্গ না থাকায় গত রোববার পর্যন্ত শুটিং করেছেন তিনি। ‘সিংহলগ্না’

ধারাবাহিকের মেক আপ আর্টিস্ট দীপঙ্করের গত ১৬ জুলাই জ্বর আসে। জ্বরের ওষুধ খেয়ে গত ২০ জুলাই আবারো শুটিংয়ে ফেরেন তিনি। কিন্তু খাবারের স্বাদ ও গন্ধ না পাওয়ার কারণে কিছুটা ভয় পেয়ে যান দীপঙ্কর। পরে কোভিড-১৯ পরীক্ষা করানোর পর জানতে পারেন তার করোনা পজিটিভ।

স্বাস্থ্যবিধি মেনেই শুটিং করছেন কলাকুশলীরা। তারপরও হঠাৎ এতো সংখ্যক মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবরে টলিপাড়ায় আতঙ্ক বিরাজ করছে বলে এ প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।